এ সপ্তাহের ( ২৯ অক্টোবর-০৫ নভেম্বর ২০১৬) রাশিফল

মেষ

রাশিশাস্ত্র পড়লেই দেখবেন, মেষ হচ্ছে তারুণ্যের প্রতীক। আর দেখবেন, প্রধানত তরুণদের উদ্দেশেই উচ্চারিত হয় আমার রাশিফলগুলো। বয়সে প্রবীণ হলেও মনের দিক থেকে এমন অনেকে আছেন যাঁরা তরুণ। তাঁরাও আমার পাঠক। জয় হোক আপনার, জয় হোক তারুণ্যের।

বৃষ

শুরুতেই আপনার রোমান্টিক বিষয়ে আসি। চলতি সপ্তাহে আপনার ভালোবাসার বেগ প্রবল থাকবে বলেই প্রথমদিকে আপনার আবেগ-চাঞ্চল্য একটু বেশিই হবে। মন একবার পছন্দের দিকে যাবে, আরেকবার অপছন্দের দিকে ঘুরে আসবে। এই দোলাচলে আপনি পাবেন বেশি, হারাবেন কম।

মিথুন

একজন মিথুন জানালেন, তিনি আঙুলে আংটি পরেছেন, ব্যস শেষ। আর কিছুই না। আমি তো এখনো ভাবছি মিথুন রাশির ওই জাতিকাটি বিয়ের আংটি পরলেন কি না। হতেও পারে। বর্তমান সময়ে এসে অনেক মিথুন নারীই শুধু নয়, পুরুষদের মধ্যেও অনেকে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন। তাই তো বলি, বাতাসে শুধু একটা কাচ্চি বিরিয়ানির সুগন্ধ কেন পাই!

কর্কট

যেসব কর্কট তরুণ বয়সীরা এখন থেকেই মালকড়ি বানানোর মতলব করবেন, তাঁদের মতলব ৭০ শতাংশ পূর্ণ হবে। এই তো হয়ে গেল, আনন্দে এবার বগল বাজাতে থাকুন। আহ্লাদে গলে পড়ুন। দেখা হবে ফের আগামী শনিবারে।

সিংহ

হৃদয়ঘটিত ব্যাপারে চলতি সপ্তাহে সিংহ তুঙ্গে অবস্থান করবেন। আহা কী আনন্দ আকাশে বাতাসে!

কন্যা

এত দিন চেষ্টা করেও যার কাছ থেকে বিন্দুমাত্র সাড়া পাননি...চলতি সপ্তাহে মনে হয় এর একটা হেস্তনেস্ত হয়ে যাবে। প্রিয় কন্যা, হেস্ত হোক আর নেস্তই হোক আপনি খুশি থাকবেন। হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের সেই গানটি মনে নেই?...যা কিছু পেলাম নাকো সে আমার নয়।

তুলা

বসন্তের বাতাস এখনো অনেক দূরে। তবুও মনে হবে যেন আপনার জীবনে বসন্ত এসে গেছে। সঙ্গে নিয়ে এসেছে বিপুল সম্ভার। জয় হোক।

বৃশ্চিক

ফ্রান্সের ঔপন্যাসিকা ফ্রাঁসোয়া সাগাঁ বলেছেন, ‘টোয়েন্টি ইজ দ্য এজ অব হিলারিয়াস লাফটার’...তিনি পাঠককে মনে করিয়ে দিয়েছেন, টিনএজাররা অর্থাৎ তরুণেরা সর্বক্ষণ হাসির একটা উপলক্ষ খুঁজে বেড়ান। কথাটা একদম খাঁটি। আপনি যে বয়সেরই হন না কেন। আনন্দের উপলক্ষ খুঁজে পাবেন।

ধনু

লোকে বলে ব্যর্থতা ব্যবস্থাপনা। আমি বলি সাফল্য ব্যবস্থাপনা। চলতি সপ্তাহে আপনি ব্যর্থ নয়, সাফল্য ব্যবস্থাপনায় ব্যস্ত থাকবেন। ইহার চেয়ে আনন্দের বার্তা আর কী হইতে পারে।

মকর

পাখিরা যে জোট বাঁধে, তাদের বিয়ে হয় কোনো কমিউনিটি সেন্টারে? আর এসব বিয়ের দাওয়াত খেতে যায়-ই বা কারা? বিয়ে করা বা জোট বাঁধাটা প্রকৃতির একটা স্বাভাবিক নিয়ম। যেসব মকর বর্তমান সময়ে বিয়ের বন্ধ দরজার সামনে এসে দাঁড়িয়ে আছেন, তাঁদের উদ্দেশে বলছি: ভয় নেই। শুভ হবে।

কুম্ভ

সপ্তাহের শুরুতেই চেহারাখানা অমন প্যাঁচার মতো করে রাখার দরকার কী? সহজ মন নিয়ে তাকিয়ে দেখুন, মনের মানুষ আপনার প্রতীক্ষায় দাঁড়িয়ে আছেন।

মিন

মনের কারবারি হওয়া দোষের কিছু নয়। কিন্তু মনের চোরাকারবারি হওয়াটা নিশ্চয় একটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এটুকু জেনে নিয়ে সপ্তাহ শুরু করুন।

২০১১-২০১৭ | টক্কিজবিডি ডটকম'র কোনো সংবাদ বা ছবি অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না

Design by: Web Q BD | Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!